শিশুর হাঁপানি প্রতিরোধে করণীয়

Must read

শীতের প্রারাম্ভে সাধারণত শিশুদের হাঁপানির প্রকোপ বাড়ে। তাই ঠিক এ সময়েই শিশুদের একটু বাড়তি যত্ন নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে।
অ্যালার্জির সমস্যার কারণে সাধারণত অ্যাজমা দেখা দেয় আর শীতে শিশুরা হাঁপানির ঝুঁকিতে থাকে। তবে কিছু দিকনির্দেশনা মেনে চললেই একে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। যেমন : ১। শীতকালে ঠান্ডা যেন না লাগে সেই বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে ।

২।পুরোনো কাপড় যখন পরিধান করবে তার আগে ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে এবং কাপড়ে যাতে ধুলা-ময়লা যাতে না থাকে সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে।

৩। হাঁপানি আক্রান্ত শিশুর বাবা-মায়ের ধূমপান করা উচিত নয়। সিগারেটের ধোঁয়াও অ্যাজমার কারণ হতে পারে।

৪। শিশুর হাঁপানিতে আক্রান্ত হওয়ার ওপর খাবারের প্রভাব আছে কি না, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

৫। যদি বিশেষ কোনো খাবার খেলে শিশুর হাঁপানির আক্রমণ হয়, তবে ওই সব খাবার শিশুকে খাওয়ানো যাবে না।

৬। শিশুকে সব সময় পরিষ্কার রাখতে হবে। ধুলাবালু, জীবজন্তু, দিয়ে খেলতে দেওয়া যাবে না।

তবে সর্বদা মনে রাখতে হবে যে হাঁপানি কোনো ছোঁয়াচে রোগ নয়। এটি করোনার মতো নয় যে একজনের হলে অন্যজনের মধ্যে ছড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে । আবার অন্যদিকে অ্যাজমা আক্রান্ত মায়ের বুকের দুধ খেলেও শিশুর অ্যাজমায় আক্রান্ত হওয়ার কোন আশঙ্কা নেই। নিজে সতর্ক থাকলে, চিকিৎসকের পরামর্শমতো চললে এবং চিকিৎসা করালে হাঁপানিকে নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।

Latest article