Lets read Newspaper
together

সব আয়োজনের খবরাখবর এক জায়গায়

ভারতকে বাদ দিয়ে টিকার স্টোরেজ

on

|

views

and

comments

ফ্যাসিলিটি তৈরিতে চীনের প্রস্তাবে সম্মতি বাংলাদেশের, রাশিয়া টিকার ফর্মুলা দেবে বাংলাদেশকে।

রাশিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে করোনাভাইরাসের টিকা উৎপাদনের জন্য চুক্তি সই করেছে বাংলাদেশ। তবে শর্ত হচ্ছে টিকার ফর্মুলা রাখা হবে গোপন, জানানো হবে না কাউকে। দেশটির সঙ্গে যৌথভাবে টিকা উৎপাদনের পাশাপাশি বাণিজ্যিকভাবেও টিকা কিনবে বাংলাদেশ।

মহামারি করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে পুরো বিশ্বে। বাংলাদেশে ২০২০ সালেই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে ব্যাপক হারে। ২০২১ সালের শুরুর দিকে বাংলাদেশের করোভাইরাসের পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসলেও একই বছরের মার্চের শেষের দিকে আবারও বেড়ে যায় করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরিস্থিতি।

ইতোমধ্যে ভারতের পক্ষ থেকে করেনা ভ্যাকসিন উপহার পেয়েছে বাংলাদেশ। গত বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল, ২০২১) সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী জানান, বাংলাদেশকে ভ্যাকসিন সরবরাহ করতে ভারতের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, চুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশ ৭০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পেয়েছে। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের আওতায় পেয়েছে আরও ৩৩ লাখ ডোজ। বাংলাদেশে টিকাদান কর্মসূচি অব্যাহত রাখতে তারা ভ্যাকসিন সরবরাহের সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছে।

এরই মধ্যে দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের দেশগুলোতে করোনাভাইরাসের টিকা দ্রুত সরবরাহ করার লক্ষ্য নিয়ে একটি সংরক্ষণাগার গড়ে তোলার প্রস্তাব দিয়েছে চীন। চীনের নেতৃত্বে চীনসহ ছয়টি দেশ নিয়ে গঠিত হতে পারে ইমার্জেন্সি কোভিড ভ্যাকসিন স্টোরেজ ফ্যাসিলিটি ফর সাউথ এশিয়া। যে পাঁচটি দেশকে চীন প্রস্তাব দিয়েছে, সেগুলো হলো আফগানিস্তান, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান ও বাংলাদেশ। ভারতকে বাদ রেখে দক্ষিণ এশিয়ায় টিকার স্টোরেজ ফ্যাসিলিটি তৈরিতে চীনের প্রস্তাবে বাংলাদেশ সম্মতি জানিয়েছে। সম্মতি জানিয়েছে প্রস্তাব পাওয়া অন্য দেশগুলোও।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলায় টিকা পাওয়ার জন্য বাংলাদেশ সরকার চীনের পাশাপাশি রাশিয়ার সঙ্গেও যোগাযোগ করছে। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন জানান, রাশিয়া বাংলাদেশকে টিকা দিতে রাজি আছে। তবে বাংলাদেশের যে চাহিদা, সেটা তারা পূরণ করতে পারবে না। এ জন্য তারা টিকার ফর্মুলা দিতে রাজি হয়েছে। তারা জানিয়েছে, যৌথভাবে টিকা উৎপাদন হতে পারে। তবে বাংলাদেশকে একটা কাজ করতে হবে। টিকা উৎপাদনের ফর্মুলা বাংলাদেশ কাউকে দেখাতে পারবে না। টিকার ফর্মুলা গোপন রাখা হবে, এটা কাউকে জানানো হবে না, এই শর্তে দুই দেশের মধ্যে চুক্তি সই হয়েছে।

বাংলাদেশে টিকা উৎপাদনে সক্ষম এমন একাধিক প্রতিষ্ঠানের নামের তালিকা রাশিয়াকে দেওয়া হয়েছে। এখন রাশিয়া এক বা একাধিক প্রতিষ্ঠানকে এ ফর্মুলা দিতে পারে। যৌথভাবে বাংলাদেশে উৎপাদিত টিকা তৃতীয় দেশে রপ্তানির প্রস্তাব মেনে নিয়েছে রাশিয়া।

রাশিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে টিকা উৎপাদনের জন্য আরও কিছু সময় লাগতে পারে। তাই এখন জরুরি ভিত্তিতে যে টিকা লাগবে, সেটা তাদের কাছ থেকে কেনা হবে। এমনটা জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন।

Share this
Tags

Must-read

বিশাল উৎসব মুখর পরিবেশে নবীনদের বরণ করে নিল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব

গত ১২ই নভেম্বর নবাগত শিক্ষার্থীদের নিয়ে শহীদ সুখরঞ্জন টিএসসিসি অডিটোরিয়াম জাঁকজমকতার সাথে অনুষ্ঠিত হয় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাবের নবীন বরণ অনুষ্ঠান৷ প্রতিবারের মত এবারও...

Team Atlas representing Bangladesh in international competitions

Team Atlas is going to represent Bangladesh by participating in the International Science and Innovation Fair to be held in Bali, Indonesia from November...

ডি আই ইউ বিজনেস এন্ড এডুকেশন ক্লাবের উদ্যোগে আয়োজিত হলো “ফল এক্সকারসন সিজন ৩.০।”

"ক্যারিয়ার সেশন অন কর্পোরেট টকস্"এর মধ্য দিয়ে শুরু হয় ফল এক্সকারসন সিজন ৩.০। উক্ত সেশন থেকে ক্লাব মেম্বাররা "ক্লাবিং কিভাবে কর্পোরেট জগতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা...
spot_img

Recent articles

More like this