দ্বিতীয় দফায় বাংলাদেশকে সিনোফার্মের তৈরি আরও ৬ লাখ ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা উপহার দেওয়ার কথা জানিয়েছে চীনা দূতাবাস।

গত শুক্রবার (২১ মে, ২০২১) সন্ধ্যায় চীনের স্টেট কাউন্সিলর ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই’র সঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন টেলিফোনে কথা বলার সময় চীনের পক্ষ থেকে বিষয়টি জানানো হয়।

ঢাকায় চীনা দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশে করোনাভাইরাস মহামারির বর্তমান পরিস্থিতিতে নিবিড় মনোযোগ রাখছে চীন। জরুরি মুহূর্তে টিকার সংকট মোকাবিলায় বাংলাদেশের পাশে থাকতেই উপহার পাঠানোর এ সিদ্ধান্ত।

দূতাবাস আরও জানায়, ভবিষ্যতে বাংলাদেশ-সহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোকে মহামারির বিরুদ্ধে লড়াই করতে, দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা আরও জোরদার করতে এবং দুই দেশের জনগণের স্বাস্থ্য ও জীবনের নিরাপত্তা দিতে প্রয়োজনীয় সহায়তা দিতে রাজি চীন।

চীনের স্টেট কাউন্সিলর ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই জানান, বাংলাদেশ ছাড়াও মালয়েশিয়া, তুরস্ক, ব্রাজিল ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে যৌথভাবে করোনাভাইরাসের টিকা  উৎপাদন করছে চীন।

তবে কবে নাগাদ এই ৬ লাখ ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা দেশে আসবে সেটার কোনো নির্দিষ্ট ঘোষণা জানা যায়নি।

এর আগে ১২ মে বাংলাদেশের কাছে প্রথম দফা উপহারের ৫ লাখ ডোজ টিকা হস্তান্তর করে চীন। সিনোফার্মের তৈরি ওই টিকা আগামী সপ্তাহ থেকে প্রয়োগ শুরু হবে এবং করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ‘সম্মুখসারির যোদ্ধারা’ অগ্রাধিকার পাবেন বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এর আগে জানিয়েছিলেন।

ছবি: ইন্টারনেট